যে কোন সাহিত্য সৃষ্টির মধ্যে অন্তর্নিহিত থাকে সেই সময়কার ইতিহাস। স্ফুলিঙ্গের ক্ষেত্রে বলা যায় একটি দলিল, যা কি না রক্ষিত করেছে আজকের সমাজের কালো সাদায় মেলানো দিকগুলোকে। কিছু ব্যাক্তি স্বত্তার মুখের সঙ্গে তিনি কাল্পনিক চরিত্র হিসাবে পরিচয় ঘটিয়েছেন। যেটা একেবারেই বাস্তবের ছবি। এটি হয়ত সেই ক্ষেত্রে কিছু মানুষের কাছে অপছন্দের বিষয় হতেই পারে। তবুও বলা যায় অনিরুদ্ধ বসু স্ফুলিঙ্গের মধ্যে দিয়ে আজকের ইতিহাস ধরে রাখলেন।

Advertisements