স্বপ্ন দেখেছি গাছের শীতলে

তোমার বাসন্তী বেশে।

এলোচুলে কৃষ্ণকায়া দেহের

মধুমাখা সুবাসে।

বিস্তৃত ধরণির ধূলিকণা মেখে

তোমার চুলের হাসনুহানার গন্ধ মেখে

কামাতুর স্নান করেছি তোমার সুবাসে

অধরা অছোঁয়া জাগ্রত ধামে।

স্বপ্ন বিহ্বল অকৃত্রিম চিরায়িত কামে।

অবারিত কমাতুর ললসা

জাগায় রিপুর জিঘাংসা

মেকি অনাবিল আনন্দ নিকেতেনে।

ফুটফুটে স্বপ্ন, চতেনার নিবন্ধে

ফোটে অকৃতিম নয়ন রঙের মাদকতা।

কে তুমি যাতনাময়?

নব অভ্যুদয়ে সদা সদয়…

কে তুমি দয়াময় নতুন চেতনায়

শেখালে স্বপ্ন, ভূলোক, দ্যুলোকের অঙ্ক?

কে তুমি দেখা দিলে আজ সাঁঝে?

শীতের পরশে নতুন হরষে।

জাগাতে কল্লোল?

আমি কী তোমার প্রেয়া?

হাসনুহানার  সুগন্ধে ভরা

অদূরের স্বপ্ন শ্রেয়া?

আমি কী তোমার বাঁধভাঙ্গা কজ্জ্বল

মধুমেহ মাখা সদা প্রোজ্জ্বল

স্বপ্ন জড়িমায় চির উজ্জ্বল

অচেনা দিয়ার আলো।

জাগেনি কী স্বপ্ন মাধুরী?

স্বপনে জাগরণে নতুন ছন্দে দেখা

মধুময় স্বপ্ন বাসরের

রঙিন জলছবি আঁকা।

Advertisements