সূর্য অস্ত গেছে

অনেক অনেক অনেক আগে

হাঁসফাঁসে গোধূলি থেকে জমাট আঁধার।

মা ফ্লাইওভারের থমথমে রাতের জড়তায়

এসি গাড়িটা ছুটছে শ্রান্তির আঙিনায়।

তাপদগ্ধ কোলাহল থেকে কনত্রর মিষ্টি চুমুকে

একটু স্নান, একটু বিশ্রাম, একটু আরাম।

নিঝুম রাত, শুধু মুখোমুখি চাওয়া

কথা নেই, তবু অনেক কথা বলা।

মেঘটা চিবুক ছাড়িয়ে, ঠোঁটের ওপরে

সরীসৃপের মতো উঠছে কাজল চোখের দিকে।

সব মেঘ কেন আকাশ ভুলে বুকে?

স্বপ্ন কী তবে হারিয়েছে

কাজলকালো ও দু চোখে?

জড়ানো চোখ, কাঁপা ঠোঁট,

ক্ষণিক ক্লেশের বিরাম

এসির প্রলেপে যেটুকু আরাম।

দেহের চাওয়া ক্লেদাক্ত রাতে ম্লান।

আকাশ পেরিয়ে, নিশুতি মাড়িয়ে

রক্তমাখা আকাশগাঙ পেরিয়ে

বৃষ্টি এল। জড়তা ভেদ করে

রাতের মখমলে ওড়না বুলিয়ে

বাহির থেকে অন্তরে।

ছুড়ে ফেলে কনত্রর গ্লাস

শ্রাবণ তখন মত্ত উল্লাস।

ব্যথভারা অস্তিত্বর স্নিগ্ধ আলোকে।

Advertisements