একটা ছবি আঁকতে গিয়ে হারিয়ে গেলাম।

সহস্র ছবির কোলাহলে একটাই ছবি

তোমার আকার সাকার নিরাকার

অনাড়ম্বর প্রকৃত সত্যের আকার।

আমার স্বপ্ন পটে তুলিতে আঁকা

ক্যানভাসে প্রোজ্জ্বল আগামী দিনের অঙ্গীকার

আমি তোমার ছবি আঁকতে চেয়েছি।

বলিষ্ঠ, দৃপ্ত, লালসা লিপ্ত

আজকের সমীহারে অম্লান।

আমি তোমার ছবি আঁকতে চেয়েছি

স্বপ্নের কল্পনা দিয়ে, বাস্তবের সুর গেয়ে

যে অক্ষত মহান, সদা সত মহান।

আজও নিজের সৌরভে প্রস্ফুটিত সুবাস

কালকের ভয় করেনা সন্ত্রাস

আজকের আমিত্বের মধ্যে

সে সদা উদ্ভাসিত জাগ্রত

নিজের মহিমায় বলিয়ান।

আমি তোমার ছবি আঁকতে চেয়েছি

না-পাওয়া সহস্র কোটি টাকার দামে।

আমার নিজের স্বপ্নের উর্বসে আঁকা

হয়ত স্বপ্ন কবিতার রঙে মাখা।

নতুন সুবাসে।

আমি স্বপ্ন কেশর আঁকতে চেয়েছি

তোমাকে ভুলে তোমার সহস্র কোটি টাকার নিলামের অবলুণ্ঠিত নিঃশব্দ কামে।

আমার তোমাকে বোঝার

না-পাওয়ার কিঞ্চিত শুল্ক দামে।

আঁকতে গেলে তাড়া করে বর্তমান।

নিলামের তোলার পরিমাপে।

আমি খুঁজে পাইনা তোমাকে

প্রতি রাতের তোমাকে লাখে কেনা বেচার

তোমার দেহের নিলামে।

নিজেকে বিক্রি করা করা

আজকের রাতের নিঃশব্দ কামে।

কালকের পরিণতি বুঝিয়ে দেয়

খবরের কাগজের তোমার পুজা

ক্ষয়ে যাওয়া আজকের সেলামে।

তোমার বাইরেও তো তুমি এখনও আছ।

আমার ক্ষুদ্র বাগানের চন্দ্রমল্লিকা সম

সেই সুপ্ত ফুলের অছোয়া বাগানে।

আমি তোমার ছবি লুকিয়ে রাখি

একাকী একা নিঃশব্দ সঙ্গোপনে।

Advertisements